default-image

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাসচালক, সুপারভাইজারসহ চারজন নিহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে উপজেলার দশমাইল এলাকায় ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন।

নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে তিনজনের পরিচয় জানা গেছে। তাঁরা হলেন রওশন হাবিব (৪৫), মাসুদ (৩৫) ও বাবুল (৫০)। নিহত অন্যজনের নাম জানা যায়নি। নিহত রওশন ওই বাসের চালক ও বাবুল বাসটির সুপারভাইজার ছিলেন। নিহত বাবুল নীলফামারীর ডিমলা থানার পশ্চিম ছাতনাই গ্রামের বাসিন্দা। আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে স্থানীয় হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস।

পুলিশ জানায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা নীলফামারীগামী সৃষ্টি নামের একটি বাসের সঙ্গে বিপরীতমুখী নাবিল পরিবহনের একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে উভয় গাড়ি মহাসড়কের দুই পাশে ছিটকে পড়ে। হতাহত সবাই সৃষ্টি বাসের আরোহী ছিলেন।

দুই বাসের সংঘর্ষে চারজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে শেরপুর হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ বানিউল আনাম বলেন, দুটি বাস বেপরোয়াভাবে চলছিল। দুর্ঘটনায় কবলিত বাস দুটি জব্দ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন