বগুড়ায় পাওনা টাকা আনতে গিয়ে তরুণ খুন

বগুড়ায় পাওনা টাকা আনতে গিয়ে তরুণ খুন
বিজ্ঞাপন

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলায় পাওনা টাকা আনতে গিয়ে হত্যার শিকার হয়েছেন এক তরুণ। পরিবার ও পুলিশ জানিয়েছে, পাওনা টাকা দেওয়ার কথা বলে ওই তরুণকে মুঠোফোনে বাড়ি থেকে ডেকে নেওয়া হয়। গতকাল মঙ্গলবার রাত নয়টার দিকে উপজেলার শাকপালা পশ্চিমপাড়া এলাকা থেকে তরুণের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত তরুণের নাম নাহিদ হোসেন (২৪)। তিনি ফুলতলা পূর্বপাড়ার জাহিদুল ইসলামের ছেলে। নাহিদ বগুড়া পল্লী বিদ‍্যুৎ সমিতির একজন ঠিকাদারের সহকারী ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঘটনার পরপরই পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা, বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তীসহ জেলা পুলিশের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী নিহত নাহিদের পরিবারের বরাত দিয়ে প্রথম আলোকে বলেন, নাহিদ বগুড়া পল্লী বিদ‍্যুৎ সমিতিতে সাবঠিকাদারি করতেন। তাঁর সঙ্গে শাকপালা এলাকার রাসেল নামের একজনের লেনদেন ছিল। বেশকিছু টাকা পাওনা ছিল রাসেলের কাছে। গতকাল রাতে সেই টাকা দেওয়ার কথা বলে নাহিদকে ফুলতলা থেকে শাকপালায় ডেকে নেন রাসেল। রাত নয়টার দিকে শাকপালা পশ্চিমপাড়ার নির্জন স্থানে নাহিদের রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শাজাহানপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমবার হোসেন আজ বুধবার সকালে প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় থানায় এখনো মামলা হয়নি। হত্যাকাণ্ডে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ মাঠে নেমেছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন