default-image

বগুড়ায় জাহাঙ্গীর প্রামাণিক (৫০) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার হয়েছে। তিনি পেশায় বাবুর্চি। লাশের পাশেই পড়ে থাকা একটি ব্যাগ পেয়েছে পুলিশ। সেখানে মিলেছে কাফনের কাপড়, আতর-সুরমা, গোলাপজলসহ নানা উপকরণ।

আজ শুক্রবার দুপুরে বগুড়া সদর উপজেলার লাহিড়ীপাড়া ইউনিয়নের দোবাড়িয়া পশ্চিমপাড়া গ্রামে বাড়ির অদূরে একটি ফাঁকা জায়গা থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। নিহতের বাড়ি দোবাড়িয়া গ্রামেই। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। পুলিশ জানিয়েছে, জাহাঙ্গীর একাধিক বিয়ে করেছিলেন। পারিবারিক কারণে তিনি বিষপানে আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন। তাঁর লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ছোট ভাইয়ের কাছ থেকে মাফ চেয়ে এক হাজার টাকা নিয়ে বিকেলে বাড়ি থেকে বের হন জাহাঙ্গীর। ধারণা করা হচ্ছে, সেই টাকায় তিনি কাফনের কাপড়, আতর, সুরমা, গোলাপজলসহ দাফনের উপকরণ কিনে ব্যাগে রাখেন।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ূন কবীর বলেন, ছোট ভাইয়ের কাছ থেকে মাফ চেয়ে এক হাজার টাকা নিয়ে বিকেলে বাড়ি থেকে বের হন জাহাঙ্গীর। ধারণা করা হচ্ছে, সেই টাকায় তিনি কাফনের কাপড়, আতর, সুরমা, গোলাপজলসহ দাফনের উপকরণ কিনে ব্যাগে রাখেন। পরে রাতের কোনো এক সময় বাড়ি থেকে ১০০ গজ দূরে বিষপানে আত্মহত্যা করেন। তাঁর ব্যাগ থেকে কাফনের কাপড়সহ সব উপকরণ পাওয়া গেছে।

ওসি আরও বলেন, সুরতহাল প্রতিবেদন অনুযায়ী হত্যার কোনো আলামত মেলেনি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, জাহাঙ্গীর বিষাক্ত কিছু খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল। পরে তা পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন