বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শী লোকজনের উদ্ধৃতি দিয়ে হারদী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম বলেন, আজ বিকেলে ছমির কাজী বাড়ির পাশের মাঠে নিজের গরু রাখতে যান। এ সময় বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রপাত হয় এবং ছমির যেখানে গরু রাখছিলেন, তার পাশেই একটি পানের বরজে বজ্রপাতে আগুন ধরে জ্বলতে থাকে। বজ্রপাতে পানের বরজে আগুন জ্বলতে দেখে ভয়ে ও আতঙ্কে ছমির কাজী জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। মুমূর্ষু অবস্থায় আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক আবু জাহিদ তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

আবু জাহিদ মুঠোফোনে প্রথম আলোকে জানান, ছমির কাজীকে তাঁর স্বজনেরা বিকেল পাঁচটার দিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। তাৎক্ষণিক প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা যায়, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার আগেই তিনি মারা গেছেন।

চিকিৎসক আবু জাহিদ আরও বলেন, বজ্রপাতে কেউ মারা গেলে মৃত ব্যক্তির শরীরে যেসব আলামত দেখা যায়, ছমির কাজীর বেলায় তা পাওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, বৃষ্টির মধ্যে বজ্রপাতে বরজে আগুন ধরতে দেখে তিনি আতঙ্কে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন এবং হৃদ্‌যন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন