বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঘটনার খবর পেয়ে বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী ও একই বিভাগের বন সংরক্ষক মির্জা মেহেদী সারওয়ার দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে মৃত দুটি বন্য প্রাণী উদ্ধার করেন। পরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে প্রাণী দুটিকে মাটি চাপা দেন। আর দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে যাওয়া উল্টো লেজি বানরের বাচ্চাকে বন্য প্রাণী রেসকিউ সেন্টারের সেবাকেন্দ্রে নিয়ে যান।

বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বন সংরক্ষক মির্জা মেহেদী সারওয়ার প্রথম আলোকে বলেন, ঘটনাস্থলে এসে এ দুটি মৃত বন্য প্রাণীকে দেখে তিনি কেঁদে ফেলেন। তিনি বলেন, এ বনের বন্য প্রাণী রক্ষায় সব ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করছেন। গতকাল বন্য প্রাণী দিবস পালন করে বেশ কিছু সচেতনতামূলক কর্মসূচি পালন করেছেন। আর একই দিনে বিকেলে বনের ভেতর দুটি প্রাণীর মৃত্যু হলো। বিষয়টি তিনি মেনে নিতে পারছেন না।

বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, বেঁচে থাকা উল্টো লেজি বানরের বাচ্চাকে কোলে নিয়ে দীর্ঘ সময় তিনি বনে ছিলেন। তিনি আরও বলেন, এ উদ্যানের ভেতরের রাস্তায় চলা যানবাহন, রেলপথ ও বৈদ্যুতিক লাইন বন্য প্রাণীর জন্য হুমকি। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে বারবার চিঠি দিয়েছেন। বন্য প্রাণী রক্ষায় বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণের চেষ্টা করছেন। এর মধ্যে একই সময়ে দুটি বন্য প্রাণীর মৃত্যু কষ্টের।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন