বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গাজীপুর সিটির ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান বলেন, সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের সময়ে ক্ষতিপূরণ না দিয়ে রাস্তা-ড্রেন নির্মাণ ও প্রশস্ত করার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের অভিযোগসহ অন্যান্য অনিয়মের তথ্য নিতে তদন্ত কমিটির সদস্যরা মঙ্গলবার সিটি করপোরেশনের মীরের বাজার, বিন্দান হাইস্কুল হয়ে নারায়ণকুল পর্যন্ত নির্মাণকাজ সরেজমিন পরিদর্শন করেন এবং ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলেন। এ ছাড়া টঙ্গীর ইজতেমা ময়দান এলাকায় কাজের অনিয়মের তথ্য সংগ্রহ করেন। বিকেলে তাঁরা নগর ভবনে গিয়ে ওই সব কাজের নথি ও কাগজপত্র তলব করেন এবং সংগ্রহ করেন।

টেন্ডারবাজি, অযৌক্তিক লোকবল নিয়োগ করার পাশাপাশি বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে ভুয়া বিল-ভাউচারের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গাজীপুর সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে ২৫ নভেম্বর সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

টেন্ডারবাজি, অযৌক্তিক লোকবল নিয়োগ করার পাশাপাশি বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে ভুয়া বিল-ভাউচারের মাধ্যমে এবং একই কাজ বিভিন্ন প্রকল্পে দেখিয়ে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে ২৫ নভেম্বর সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। পরে গাজীপুর সিটির প্যানেল মেয়র মো. আসাদুর রহমানকে ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব দেওয়া হয়।

এর আগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি ও মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে গত ১৯ নভেম্বর দলের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠক থেকে জাহাঙ্গীর আলমকে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দলের সদস্যপদ থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করে আওয়ামী লীগ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন