বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

যে সাতজনকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তাঁরা হলেন সদর উপজেলার রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা বর্তমান চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান ওরফে খোকন ও মিজানুর রহমান ওরফে জাকির, শায়েস্তাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রুবেল হোসেন তালুকদার ওরফে মামুন, চরমোনাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক গিয়াসউদ্দিন হাওলাদার, চরকাউয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নেতা সুলতান আহমেদ খান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ এবং চাঁদপুরা ইউনিয়ন সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক জাহিদ হোসেন।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে গত ৯ অক্টোবর এসব ইউনিয়ন পরিষদে দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত করা হয়। এরপরও দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে যাঁরা বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন, তাঁদের দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বহিষ্কারের সিদ্ধান্তের অনুলিপি দলীয় নেতাদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

দ্বিতীয় ধাপে ১১ নভেম্বর বরিশাল জেলার ৩টি উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে বরিশাল সদরে ৬টি, আগৈলঝাড়ায় ৫টি এবং বানারীপাড়ায় ১টি ইউনিয়নে ভোট হওয়ার কথা।

তবে ২৬ অক্টোবর মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন আগৈলঝাড়া উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ছাড়া অন্য সব প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেন। এতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন।

আগৈলঝাড়ায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন যে পাঁচ চেয়ারম্যান তাঁরা হলেন রাজিহারে ইলিয়াস তালুকদার, বাকালে বিপুল দাস, বাগধায় আমিনুল ইসলাম, গৈলায় শফিকুল হোসেন ও রত্নপুরে গোলাম মোস্তফা সরদার। এর আগে প্রথম ধাপে বরিশাল জেলার ৫০টি ইউনিয়নে নির্বাচন হয় গত ১১ এপ্রিল। এর মধ্যে ১৪টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

বরিশাল সদরে ছয়টি ইউনিয়নের মধ্যে পাঁচটিতেই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আছে। ফলে এসব ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীরা অনেকটা অস্বস্তিতে আছেন। একইভাবে তিন ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিএনপির নেতারা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন। ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী আছেন ছয় ইউনিয়নেই।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন