default-image

বরিশালে রফিকুল ইসলাম ওরফে টিপু নামে ছাত্রদলের এক নেতাকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার রাতে নগরের শ্রীনাথ চ্যাটার্জি লেনে বরিশাল কলেজসংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রফিকুল বরিশাল কলেজ ছাত্রদলের সংগঠক হিসেবে পরিচিত। পুলিশ প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে, বড়-ছোটর দ্বন্দ্বে এ ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কলেজ শাখা ছাত্রদল সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ২৪ মার্চ একই স্থানে রফিকুলের বড় ভাই রাফসান আহম্মেদ ওরফে জিতু সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত হন। রাফসান বরিশাল কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক ও সাবেক মেয়র আহসান হাবিবের সমর্থক ছিলেন।

আহত ছাত্রদল নেতা বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সেখানকার চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, রফিকুলের মাথায় ছয়টি এবং শরীরে একটি স্থানে জখম হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার রাতে রফিকুল কলেজসংলগ্ন শ্রীনাথ চ্যাটার্জি লেনের মুখের একটি হোটেলে বসেছিলেন। এ সময় ১৫ থেকে ২০ জনের একটি দল সেখানে গিয়ে রফিকুলকে টেনেহিঁচড়ে বাইরে বের করার চেষ্টা চালায় ও দোকানটি ভাঙচুর করে। রফিকুলকে সড়কে এনে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায় তারা। এরপর স্থানীয় লোকজন রফিকুলকে উদ্ধার করে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।

হামলাকারীদের সম্পর্কে স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, হামলাকারীরা অনেক আগে থেকেই এলাকায় নানা অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটিয়ে আসছে। তারা শুরুতে কিশোর গ্যাং তৈরি করে সদর রোড, ফকিরবাড়ি, কালীবাড়ি রোডসহ আশপাশের এলাকায় নানা অপরাধমূলক কাজ করত। তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে একাধিক মামলাও আছে।

বরিশালের কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসাদুজ্জামান বলেন, বড়-ছোট দ্বন্দ্ব নিয়ে এই ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। তবে এ ঘটনায় থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ দেননি।

মন্তব্য পড়ুন 0