বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আবদুর রউফ ও আলেয়া আক্তার দম্পতি গ্রামের হাওরে একটি বাড়ি তৈরি করে সেখানে পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন। তাঁদের আশপাশে আর কোনো বাড়িঘর নেই। প্রতিদিনের মতো নিজ বাড়িতে রাতের খাবার শেষে তাঁরা ঘুমিয়ে পড়েন। আজ শুক্রবার সকালে তাঁদের দুই সন্তান রায়হান ও ফরহাদ ঘুম থেকে উঠে দেখতে পায়, ঘরের আড়ার সঙ্গে এক রশিতে তাঁদের মা-বাবার লাশ ঝুলছে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ এসে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে লাশ দুটি উদ্ধার করে।

আবদুর রউফের বাবা আবুল হোসেন ও আলেয়া আক্তারের বাবা জমির আলী দাবি করেন, এটি হত্যাকাণ্ড। তাঁরা হাওরে বাড়ি করে বসবাস করে আসছিলেন। দুর্বৃত্তরা তাঁদের হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রেখে গেছে।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আলী আশরাফ বলেন, লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁদের গায়ে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা, ময়নাতদন্ত ছাড়া কিছুই বলা যাচ্ছে না।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন