বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নতুন কম্বল হাতে পেয়ে ৭৫ বছর বয়সী তোফাজ্জল হোসেন বলেন, ‘গ্যালো বছরের আগের বছর অ্যাটটা কোম্বল পাইয়েলাম। সিডা মুখ ডাকলি পা আগলা হয়ে যায়, পা ঢাকলি মুখ আগলা হয়ে যায়। তেবে, তুমাগেরডা ফাইন। য্যারাম বড়, ত্যারাম মুটা। ভালোই আরাম হবেনে।’

দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ভিখারি বাবলু মিয়া বলেন, ‘অ্যাকন মানুষজন ত্যামন ভিক্কে দিতি চায় না। সুংসার চালাতিই হিমশিম। ল্যাপ-কোম্বল কিনব, সে ট্যাকা পাব কনে?’

কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নতিডাঙ্গা আবাসন কমিটির সভাপতি জামসেদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আল আমিন হোসেন, সমাজসেবক ওবায়দুর রহমান, প্রথম আলো চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি শাহ আলম, প্রথম আলো বন্ধুসভার সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্লাবন বাশার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ আল আরাফাত, সাংগঠনিক সম্পাদক সানজিদ আহমেদ, নির্বাহী সদস্য মাহবুবুল আলম, সাদিয়া সুলতানা সুরাইয়া, মাহির রাফি, শওকত আলী প্রমুখ।

সমাজসেবক ওবায়দুর রহমান বলেন, ‘প্রথম আলো সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষকে এগিয়ে নিতে ২০ বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করে চলেছে। শিক্ষার্থীদের জন্য গণিত অলিম্পিয়াড, ভাষা প্রতিযোগ, বিজ্ঞান অলিম্পিয়াডসহ অদম্য মেধাবীদের পড়ালেখা চালিয়ে নিতে সহযোগিতা করে আসছে। সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তনে এই পত্রিকা বড় ধরনের ভূমিকা রেখে চলেছে। শীতবস্ত্র দেওয়ায় এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে তাদের ধন্যবাদ জানাই।’

শীতার্ত ও অসহায় মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসার জন্য সমাজের বিত্তবানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রথম আলো বন্ধুসভার স্থানীয় সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন।

শীতার্ত মানুষের সহযোগিতায় আপনিও এগিয়ে আসতে পারেন। সহায়তা পাঠানো যাবে ব্যাংক ও বিকাশের মাধ্যমে।

হিসাবের নাম: প্রথম আলো ট্রাস্ট/ত্রাণ তহবিল

হিসাব নম্বর: ২০৭ ২০০ ১১১৯৪

ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, কারওয়ান বাজার শাখা, ঢাকা।

অথবা

বিকাশে পেমেন্ট করতে পারেন: ০১৭১৩-০৬৭৫৭৬ এই মার্চেন্ট অ্যাকাউন্ট নম্বরে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন