বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সরেজমিন দেখা গেছে, বামনা উপজেলার রামনা এলাকার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের আধা কিলোমিটার ভেঙে বিষখালী নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। বাঁধের অবশিষ্ট অংশ রক্ষার জন্য পাউবো ভাঙনকবলিত স্থানে বালুর বস্তা ফেলছে। কিন্তু তাতেও কোনো কাজ হয়নি। তালতলী উপজেলার জয়ালভাঙ্গা এলাকার বাঁধের এক-তৃতীয়াংশ ভেঙে পায়রা নদীতে বিলীন হওয়ার উপক্রম হয়েছে।

জানতে চাইলে পাউবো বরগুনা কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. কাইছার আলম বলেন, বরগুনায় ৩৩ কিলোমিটার বাঁধ ঝুঁকিতে আছে। এসব ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধ সংস্কারের জন্য ১৩ কোটি টাকা বরাদ্দ চেয়ে পাউবোর প্রধান কার্যালয়ে প্রকল্প পাঠানো হলে ১ কোটি ২০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। যেসব জায়গায় বাঁধ ভেঙে বিলীন হয়ে যাচ্ছে, সেসব স্থানে জরুরি ভিত্তিতে বাঁধ নির্মাণ করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন