default-image

‘নদী বাঁচাও, নালিতাবাড়ী বাঁচাও’ স্লোগানে গুরুত্বপূর্ণ ভোগাই ও চেল্লাখালী নদীর ইজারা চলতি বছর থেকে বাতিল করার দাবি জানানো হয়েছে। আজ রোববার সকালে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের সামনে সুধী সমাজের ব্যানারে আয়োজিত এক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধনে স্থানীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি এম এ হাকাম হীরা, সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব দে, মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম, শিক্ষক মুনিরুজ্জামান, রবিউল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য দেন। মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হেলেনা পারভীনের কাছে একটি স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, উপজেলার দুটি গুরুত্বপূর্ণ নদী ভোগাই ও চেল্লাখলী। প্রতিবছর নদীর নাব্যতা রক্ষার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইজারা দেওয়া হয়। কিন্তু এতে হিতে বিপরীত হচ্ছে। ইজারা নেওয়া ব্যক্তিরা নদী থেকে বালু উত্তোলন করেন। ফলে ব্যাপকভাবে নদী দুটি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। পাহাড়ি ঢলে বাঁধ ভেঙে বন্যার আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।

বিজ্ঞাপন

এ ছাড়া নদীতে এখন পর্যাপ্ত বালু না থাকায় পাড় ভেঙে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের কারণে নদীর নাব্যতা–সংকট তৈরি হচ্ছে।

৮ এপ্রিল জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে ভোগাই ও চেল্লাখালী নদী দুটি ১ কোটি ৮৩ লাখ ৬১ হাজার টাকায় ইজারা দেওয়া হয়। পয়লা বৈশাখ থেকে ইজারার এক বছরের মেয়াদ কার্যকর হবে। তাই ইজারার মেয়াদ শুরুর আগেই নদী দুটি রক্ষায় ইজারা বাতিল চাইছেন উপজেলার সুধীজনেরা।

এ বিষয়ে ইউএনও হেলেনা পারভীন বলেন, সুধী সমাজের পক্ষে থেকে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি জেলা প্রশাসককে (ডিসি) জানানো হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন