বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সিপাইপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা শাহজাহান আলী বলেন, সকাল থেকেই ওই কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছিল। দুপুর ১২টার পর হঠাৎ করেই শতাধিক লোকের একটি দল বাঁশের লাঠি হাতে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করে। এ সময় তারা ভোট গ্রহণকারী কর্মকর্তাদের জিম্মি করে তাঁদের টেবিলে থাকা ব্যালট পেপার ও সিল নিয়ে যায়। এ ছাড়া আলমারিতে রাখা ব্যালট পেপারও নিয়ে যায় দলটি।

শাহজাহান আলী আরও বলেন, ওই দলের সদস্যরা তাঁর কক্ষে প্রবেশের পর তল্লাশি করে কাছে থাকা সিল নিয়ে যায় ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এ সময় কেন্দ্রে থাকা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের তৎপরতায় ভোট গ্রহণ করা ব্যালট বাক্সগুলো রক্ষা করা গেছে। ঘটনার সময় আশুতোষ রায় নামের একজন সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আহত হন।

এদিকে বেলা একটার দিকে তেঁতুলিয়া সদর ইউনিয়নের দরজিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের বাইরে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মাসুদ করিম সিদ্দিকী ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী (বিএনপি–সমর্থিত) শাহাদৎ হোসেনের কর্মী–সমর্থকদের মধ্যে মারামারি, পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত সাতজন আহত হয়েছেন।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ছায়েম মিয়া বেলা আড়াইটার দিকে মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, সিপাইপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে আটকের চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন