পুলিশ ও ভুক্তভোগীদের সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় মোল্লাপাড়া গ্রামের মো. জয়েন উদ্দিনের ছেলে মো. ইদ্রিস আলী (৪০) একই গ্রামের ছিয়ার আলীর দোকানে বাকিতে সিগারেট কিনতে যান। ছিয়ার বাকিতে সিগারেট দিতে না চাইলে তাঁর কাছ থেকে জোর করে সিগারেট নেওয়ার জন্য ধস্তাধস্তি করেন ইদ্রিস। এ সময় ইদ্রিসের সঙ্গী আলী আতার (৪৫) ও মো. আলখির (২০) ছিয়ারকে লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করেন। ছেলেকে মারতে দেখে মা হাওয়া বেগম এগিয়ে গেলে তাঁর ডান হাতের কবজিতে হাঁসুয়া দিয়ে কোপ মেরে আহত করেন তাঁরা। স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা সুরুজ্জামান শামীম জানান, আহত ব্যক্তিদের হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। সম্পূর্ণ সুস্থ হতে কিছুদিন সময় লাগবে।

লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ফজলুর রহমান জানান, ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন