বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সোনাডাঙ্গা ইউপির স্বতন্ত্র প্রার্থী মোজাফ্ফর হোসেন ও তাঁর সমর্থকদের ভাষ্য, গতকাল সন্ধ্যায় মোজাফ্ফর হোসেন ও তাঁর সমর্থকেরা সোনাডাঙ্গার এক মসজিদে মাগরিবের নামাজ আদায় করেন। নামাজ শেষে মসজিদ থেকে বের হওয়ার পর সেখানে নৌকার কয়েকজন সমর্থক মোজাফ্ফর হোসেনকে উত্ত্যক্ত করেন। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা শুরু হয়। এ সময় সেখানে নৌকার প্রার্থী আজাহারুল হকও উপস্থিত ছিলেন। এ সময় আজাহারুল হক ও তাঁর লোকজন মোজাফ্ফর হোসেনকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। এ সময় মোজাফ্ফর হোসেনকে উদ্ধার করতে তাঁর কয়েকজন সমর্থক এগিয়ে এলে তাঁদের ওপরও হামলা চালানো হয়।

এ সময় দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে নৌকার সমর্থকেরা সংঘবদ্ধ হয়ে পাশের ভরট্ট এলাকায় মোজাফ্ফর হোসেনের একটি নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা চালান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

মোজাফ্ফর হোসেন অভিযোগ করে বলেন, নৌকার প্রার্থী আজাহারুল হকের উপস্থিতিতে তাঁকে নাজেহাল করা হয়েছে। এটা সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষণ হতে পারে না। তাঁর কর্মীদের ভোটকেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এতে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে আজাহারুল হক বলেন, তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী মোজাফ্ফর হোসেনকে লাঞ্ছিত করেননি। তবে ওই সময় কিছুটা উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছিল বলে স্বীকার করেন।

এদিকে গোয়ালকান্দি ইউপিতে নৌকায় ভোট না দিলে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল মজিদ খানের সমর্থকদের কেন্দ্রে যেতে দেওয়া হবে না বলে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গতকাল রাতে আবদুল মজিদ খান বাগমারা থানায় ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। আবদুল মজিদ খানের অভিযোগ, নৌকার প্রার্থীর লোকজন তাঁর সমর্থকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নৌকায় ভোট দেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আলমগীর সরকার বলেন, অভিযোগটি সঠিক নয়। তিনি বা তাঁর কোনো কর্মী-সমর্থক কাউকে ভোট দেওয়ার ব্যাপারে হুমকি দেননি।

অপর দিকে বড় বিহানালী ইউপিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদুর রহমানের দুটি নির্বাচনী ক্যাম্পে অগ্নিসংযোগের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রাতে হরিণমারা ও মন্দিয়াল এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মাহমুদুর রহমান বাগমারা থানায় ও ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তবে লিখিত অভিযোগে তিনি কারও নাম উল্লেখ করেননি।

জানতে চাইলে বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, গোয়ালকান্দি ও বড় বিহানালী ইউপির দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর কাছ থেকে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব অভিযোগের বিষয়ে শিগগিরই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন