বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাগেরহাটের পুলিশ সুপার কে এম আরিফুল হক, সিভিল সার্জন কে এম হুমায়ুন কবির, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোছাব্বেরুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া পারভীন, বাগেরহাট ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আহাদ উদ্দীন হায়দার, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মনির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সরদার নাহিয়ান আল সুলতান উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান বলেন, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে সদর আসনের (বাগেরহাট-২) সাংসদ শেখ তন্ময়ের অক্সিজেন ব্যাংক চালুর উদ্যোগটি অনন্য সাধারণ। এ মুহূর্তে করোনা রোগীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান। সময়মতো অক্সিজেন পৌঁছে দিলে একজন রোগীর যেমন জীবন বাঁচতে পারে, আবার অক্সিজেনের অভাবে একজন রোগীর জীবনহানিও ঘটতে পারে।

এর আগে ‘প্রাণের বাগেরহাট’ নামের ফেসবুক গ্রুপ এবং রেড ক্রিসেন্টের পক্ষ থেকে সদরে জরুরি অক্সিজেনের প্রয়োজনে দুটি অক্সিজেন ব্যাংক করা হয়। গত বুধবার ফকিরহাটের মুলঘর এলাকায়ও একটি অক্সিজেন ব্যাংক উদ্বোধন করা হয়েছে।

করোনা বাড়তে থাকায় গেল ২০ এপ্রিল বাগেরহাটের মোংলায় শেখ রাসেল অক্সিজেন ব্যাংক নামের প্রথম অক্সিজেন ব্যাংক শুরু হয়। এরপর মোংলার দিগরাজ, বাগেরহাট সদরের চুলকাঠিসহ বিভিন্ন এলাকায় স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে অক্সিজেন ব্যাংক চালু হয়েছে। এখান থেকে সেবা পাচ্ছেন করোনায় আক্রান্ত রোগীরা।

চিকিৎসকেরা বলছেন, শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে রোগীকে অক্সিজেন সাপোর্ট দিতে হবে। করোনায় আক্রান্ত যেসব রোগীর অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়, তাঁদের অনেকেরই উচ্চচাপের অক্সিজেন প্রয়োজন হয়, যা সিলিন্ডার অক্সিজন দিয়ে পুরোপুরি মেটানো সম্ভব নয়। এ জন্য জটিল রোগীদের সিলিন্ডার অক্সিজেন দিয়ে বাসায় না রেখে তাঁদের দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন