বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সারিয়াকান্দি থানার চন্দনবাইশা তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক দূরুল হুদা প্রথম আলোকে শিহাবের লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বুধবার বেলা একটার দিকে রাজশাহী থেকে আসা ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা নদীতে উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। বেলা দুইটার দিকে ঘাট এলাকায় মাঝনদী থেকে স্কুলছাত্র শিহাবের লাশ উদ্ধার হয়।

দূরুল হুদা আরও বলেন, গতকাল মঙ্গলবার বেলা দুইটার দিকে সারিয়াকান্দি উপজেলার ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের বাঁশহাটা পশ্চিমপাড়ায় বাঙ্গালী নদীর নয়াপাড়া ঘাটে গোসল করতে নেমে শিহাব উদ্দিন নিখোঁজ হয়। সে সারিয়াকান্দি উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের বড়ইকান্দি উচ্চবিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র এবং বড়ইকান্দি গ্রামের মিঠু মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কয়েক মাস আগে সারিয়াকান্দি উপজেলার বাঁশহাটা পশ্চিমপাড়া গ্রামের রাজমিস্ত্রি আলমগীর হোসেনের সঙ্গে শিহাবের বড় বোন মিতু আকতারের বিয়ে হয়। তিন দিন আগে বোন মিতুর শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে আসে শিহাব।

ভেলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য এবং বাঁশহাটা গ্রামের বাসিন্দা রুবেল মণ্ডল মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, মঙ্গলবার বেলা দুইটার দিকে গ্রামের অন্য তিন শিশুর সঙ্গে শিহাব বাঙ্গালী নদীতে গোসল করতে নামে। এ সময় সাঁতার না জানার কারণে নদীর স্রোতের তোড়ে শিহাব পানিতে তলিয়ে যায়। অন্য শিশুরা তীরে উঠে বিষয়টি স্থানীয় লোকজনকে জানালে খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। পরে সারিয়াকান্দি ফায়ার সার্ভিস স্টেশনকে খবর দেওয়া হলে সন্ধ্যায় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রাজশাহী থেকে ডুবুরি দলকে ডাকেন। বুধবার রাজশাহী থেকে আসা ডুবুরি দলের সদস্যরা বাঙ্গালী নদীতে তল্লাশি চালিয়ে শিহাবের লাশ উদ্ধার করেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন