default-image

বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার বাইশারী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ২ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. সোহেল হোসেনকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের লোকজনের বিরুদ্ধে। সোমবার ভোরে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর আগে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার বাংলাবাজার এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

ইউপি সদস্য সোহেলের বোন নাজনীন জাহান অভিযোগ করে বলেন, উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণার লক্ষ্যে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কমিটি গঠন নিয়ে বৈঠক হয়। এ সময় তাঁর ভাই বাইশারী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার (ইউপি সদস্য) সোহেল হোসেনও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। সেখান থেকে কয়েকজনকে নিয়ে চা পান করার জন্য তিনি বাংলাবাজারে যান। চা পান শেষে ফেরার পথে প্রতিপক্ষ সাইদুল সিকদার, তাঁর ভাই সুমন সিদ্দিকিসহ কয়েকজন মিলে তাঁদের ওপর হামলা চালান। এ সময় তাঁরা সোহেলকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন।
নাজনীন বলেন, হামলায় সোহেলের বাম হাতের কবজির নিচের অংশ জখম হয়েছে। ঘটনার পর তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে চিকিৎসকের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ঢাকায় নিয়ে একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিজ্ঞাপন

স্বজনদের দাবি, বাইশারী ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর ২ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচনী প্রচারণা কমিটির সদস্যসচিব করা হয়েছে সোহেল হোসেনকে। এ নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন তাঁর ওপর এই হামলা চালিয়েছেন। এর আগেও এই পক্ষটি সোহেল হোসেনকে বিভিন্ন মামলায় আসামি করে হয়রানি করে।

এ ঘটনার পর আহত সোহেলের বাবা মোশারেফ হোসেন থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হেলাল উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন