বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ সোমবার বেলা ১১টায় বাদী, আসামি আবুল কালাম ও উভয় পক্ষের আইনজীবীদের উপস্থিতিতে মামলার রায় ঘোষণা করেন জেলা ও দায়রা জজ মো. এহসানুল হক।

আবুল কালাম দীর্ঘ প্রায় সাত বছর পলাতক থাকার পর গত বছরের ৩ নভেম্বর আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

রায় ও মামলা সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক কলহের জেরে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের বাইশফাঁড়িপাড়ার আবুল কালাম তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী মনোয়ারা বেগমের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে হত্যা করেন। ২০১৩ সালের ১৭ মার্চ এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়। এ ঘটনায় নিহত মনোয়ারা বেগমের বাবা সৈয়দ আলম বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন। পুলিশ ২০১৪ সালের ১৫ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। আবুল কালাম দীর্ঘ প্রায় সাত বছর পলাতক থাকার পর গত বছরের ৩ নভেম্বর আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

আদালতের রায়ে বাদী সৈয়দ আলম সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, দীর্ঘ প্রায় আট বছর আইনি লড়াই করে তিনি মেয়ে হত্যার ন্যায়বিচার পেলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন