বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিহত শিশুটির নাম ওমর ফারুক। সে ওই গ্রামের আলমগীর হোসেনের ছেলে।

আলমগীর হোসেন বাড়ির উঠানে মাইক্রোবাস ঘোরাচ্ছিলেন। এ সময় তাঁর শিশুপুত্র গাড়ির পেছনে ছুটতে থাকে।

পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, আলমগীর হোসেন পেশায় মাইক্রোবাসচালক। তিনি আজ বেলা ১১টার দিকে বাড়ির উঠানে মাইক্রোবাস ঘোরাচ্ছিলেন। এ সময় তাঁর শিশুপুত্র ওমর ফারুক গাড়ির পেছনে ছুটতে থাকে। একপর্যায়ে অসাবধানতাবশত গাড়ির পেছনে শিশুটি চাপা পড়ে গুরুতর আহত হয়।

তাৎক্ষণিক শিশুটিকে হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালের চিকিৎসা কর্মকর্তা মিথুন রায় বলেন, হাসপাতালে শিশুটিকে মৃত অবস্থায় আনা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন