default-image

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার এক গৃহবধূকে (৩২) বাড়ির বারান্দা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গতকাল রোববার রাতে ওই নারী বাদী হয়ে চাচাশ্বশুরের বিরুদ্ধে ঈশ্বরগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

মামলা বিবরণে ওই নারী অভিযোগ করেন, তাঁর স্বামী কর্মসূত্রে তিন বছর ধরে সৌদি আরবে অবস্থান করছেন। তিনি দুই সন্তান নিয়ে বৃদ্ধ শ্বশুর-শাশুড়ির সঙ্গে স্বামীর বাড়িতে বসবাস করেন। সম্প্রতি প্রতিবেশী চাচাশ্বশুর মজিবুর রহমান তাঁকে দেখে অশোভন ইঙ্গিত করার পাশাপাশি অশালীন কথাবার্তা বলতেন। তিনি এসব বিষয়ে বাড়ির লোকজনকে জানিয়ে প্রতিকার দাবি করেন। বাড়ির লোকজন মজিবুরকে এসব করতে বারণ করে দেন।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে সৌদি আরব থেকে স্বামী তাঁকে ফোন করেন। কিন্তু ঘরে মুঠোফোনের নেটওয়ার্ক সমস্যা করায় গৃহবধূ দরজা খুলে বারান্দায় বসে স্বামীর সঙ্গে কথা বলছিলেন। হঠাৎ মজিবুর নিঃশব্দে এসে পেছন থেকে জাপটে ধরে গৃহবধূকে একটি নির্জনস্থানে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে চলে যান। বাড়িতে ফিরে তিনি শ্বশুর ও নিজের বাবাকে ঘটনাটি জানান।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল কাদের মিয়া জানান, গৃহবধূ অভিযোগটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা হিসেবে রুজু করা হয়েছে। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ওই নারীকে আজ সোমবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাড়িতে খোঁজ নিয়ে অভিযুক্ত মজিবুর রহমানকে পাওয়া যায়নি। পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0