বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রথম আলো: আপনি তো পাঁচ বছরের জন্য চেয়ারম্যান হলেন। ইউনিয়নবাসীর জন্য আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?

নাসরিন সুলতানা: প্রথমত আমার ইউনিয়নকে মাদক, বাল্যবিবাহ ও সন্ত্রাসমুক্ত ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলব। এখানকার নারীরা শিক্ষার দিক দিয়ে অনেক পিছিয়ে। এলাকায় শিক্ষা, যোগাযোগ ও চিকিৎসার বিষয়টাকে গুরুত্ব দেব।

প্রথম আলো: আপনি তো সুনামগঞ্জ জেলা মহিলা লীগের শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক। পরিবার নিয়ে সুনামগঞ্জ শহরে থাকেন। ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে ইউনিয়নবাসীকে কীভাবে সেবা দেবেন?

নাসরিন সুলতানা: ইউনিয়নবাসীর পাশে থাকার মানসিকতা নিয়েই নির্বাচন করেছি। নির্বাচিত হয়েছি। এখন থেকে আমার গ্রামের বাড়িতে থেকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করব।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন