বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে গতকাল রাতে আক্কাছ আলীর নামে শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা করেন। মামলার পর থেকে অভিযুক্ত আক্কাছ আলী পলাতক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আক্কাছ আলীর বিরুদ্ধে নারীঘটিত অভিযোগ পুরোনো। বিভিন্ন সময়ে তাঁর বিরুদ্ধে নারীদের উত্ত্যক্ত করার অভিযোগ রয়েছে।

অভিযুক্ত আক্কাছ আলী পলাতক। তবে তাঁর মুঠোফোনে কল করা হলে তিনি দাবি করেন, প্রতিবন্ধী ওই কিশোরীর এক প্রতিবেশীর সঙ্গে তাঁর বিরোধ রয়েছে। তাঁর ইন্ধনে এ ঘটনা সাজিয়ে তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে।

বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, ওই কিশোরী শারীরিক প্রতিবন্ধী। সে গুছিয়ে কথা বলতে পারে না। তাঁর মা বাদী হয়ে রাতেই থানায় একটি মামলা করেছেন। আসামি পলাতক। তাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন