বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শিশুটির পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে শিশুটি বাড়িতে একা ছিল। এ সময় তারা মিয়া সিগারেটের আগুন ধরানোর জন্য ম্যাচ চাইতে বাড়িতে ঢুকে শিশুটিকে ধর্ষণ করেন। একপর্যায়ে শিশুটির মা বাড়িতে চলে এলে তারা মিয়া দ্রুত পালিয়ে যান। আজ সকালে মামলা হওয়ার পর শিশুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের ওয়ান–স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

শিশুটির বাবা বলেন, তারা মিয়া পালিয়ে যাওয়ার পর মেয়েটি কেঁদে তার মাকে পুরো ঘটনা খুলে বলে। এ ঘটনায় আজ তিনি থানায় গিয়ে মামলাটি করেন। তিনি এই অন্যায়ের সর্বোচ্চ বিচার চান।

পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. নাসির উদ্দীন বলেন, শিশুটিকে ধর্ষণের ঘটনায় আজ সকালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হওয়ার পর থেকেই অভিযুক্ত তারা মিয়াকে গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন