বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার রাতে নিজের ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন আবদুল মোতালেব। গভীর রাতে শৌচকার্য সারতে ঘরের বাইরে যান তিনি। এরপর আর ঘরে ফেরেননি। আজ ভোরে স্থানীয় এক বাসিন্দা বাড়ি থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে সড়কের পাশে একটি খালের পাড়ে আবদুল মোতালেবের লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। তাঁর মাধ্যমে খবর পেয়ে পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান।
নিহত ব্যক্তির বড় ছেলে আব্বাস আকন (৪০) বলেন, কে বা কারা তাঁর বাবাকে হত্যা করেছে, তা বুঝে উঠতে পারছেন না তাঁরা।

আজ সকাল ১০টার দিকে সরেজমিনে দেখা যায়, ঘটনাস্থলে মোতালেবের লাশ পড়ে আছে। শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্ষতচিহ্ন। লাশের আশপাশের কয়েকটি কলাগাছ কেটে ফেলে রাখা হয়েছে।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আল মামুন বলেন, লাশটি উদ্ধার করে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। পাশাপাশি মৃত্যুর রহস্য উদ্‌ঘাটনের চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন