default-image

করোনা নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ আসায় চিকিৎসক-পুলিশ সংক্রমিত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করতে গিয়েছিলেন। এ সময় জানা গেল, ওই ব্যক্তি বোরো ধান কাটতে পাশের হাওরে চলে গেছেন। মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার সদর জায়ফরনগর ইউনিয়নের জায়ফরনগর গ্রামের আজ সোমবার সকালের ঘটনা এটি।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, জায়ফরনগর গ্রামের এক বাসিন্দা (৬৫) সর্দি-জ্বরে ভুগছেন। এ অবস্থায় ১ এপ্রিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে নমুনা পরীক্ষা করান। গতকাল রোববার বিকেলে রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

পরে ওই ব্যক্তির ছোট ভাইকে তাঁকে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে হাওরে পাঠানো হয়। এরপর ওই বাড়ির লোকজনকে ১৪ দিন বাইরে না বেরোতে বলা হয়।

স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, করোনা পজিটিভ ওই ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করতে আজ বেলা ১১টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সমরজিৎ সিংহ পুলিশের একটি দল নিয়ে তাঁর বাড়িতে যান। এ সময় সংক্রমিত ব্যক্তির খোঁজ করলে স্বজনেরা জানান, করোনা পজিটিভ ওই ব্যক্তি সকালেই ধান কাটতে পার্শ্ববর্তী হাকালুকি হাওরে গেছেন। তিনি বিকেলে ফিরবেন। পরে ওই ব্যক্তির ছোট ভাইকে তাঁকে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে হাওরে পাঠানো হয়। এরপর ওই বাড়ির লোকজনকে ১৪ দিন বাইরে না বেরোতে বলা হয়। এ ছাড়া ওই বাড়িতে লাল পতাকা টাঙিয়ে দেওয়া হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সমরজিৎ সিংহ প্রথম আলোকে বলেন, বাড়ি ফেরার পর ওই ব্যক্তি যাতে হোম আইসোলেশনে থাকেন, সে ব্যাপারে স্বজনদের বুঝিয়ে বলা হয়েছে। এ নির্দেশ না মানলে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন