default-image

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে আহত ভারতীয় নাগরিক মিলন মিয়াকে (১৮) বিএসএফের কাছে হস্তান্তর করেছে বিজিবি। রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বিএসএফ ১৯২ ব্যাটালিয়নের ঝিকরী ক্যাম্পের সদস্যদের কাছে তাঁকে হস্তান্তর করা হয়।

লালমনিরহাট বিজিবি ১৫ ব্যাটালিয়নের অধীন কাশীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ইকবাল হোসেন ও ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজীব কুমার রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজিবি সূত্রে জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় ফুলবাড়ীর অনন্তপুর সীমান্ত পথে বাংলাদেশে অবৈধ অনুপ্রবেশ করার সময় আন্তর্জাতিক সীমান্ত পিলার ৯৪৬ /৪-এস হতে ৭০ গজ ভারতের অভ্যন্তরে বিএসএফের গুলিতে আহত হন মিলন। তিনি ভারতের কুচবিহারের সাহেবগঞ্জ থানার শাহিদালের কুঠি গ্রামের জগু আলমের ছেলে। তিনি অবৈধভাবে সীমান্ত পারি দিয়ে কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীর ভিতরবন্দ ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের দোয়ালিপাড়া গ্রামে তাঁর নানা মকবুল হোসেনের বাড়িতে আসেন।

বিজ্ঞাপন

খবর পেয়ে বিজিবি স্থানীয় পুলিশের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করে রোববার ভোর চারটার দিকে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে ওই তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল হলে রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে অনন্তপুর সীমান্তে কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাঁকে বিএসএফের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ব্যাপারে ব্যাটালিয়ন কমান্ডার পর্যায়ে প্রতিবাদপত্র প্রেরণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও জানায় বিজিবি।

পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে বিজিবি ১৫ ব্যাটালিয়নের অধীন কাশীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ইকবাল হোসেন ছাড়াও ফুলবাড়ী থানার ওসি রাজীব কুমার রায় এবং নাগেশ্বরী থানার ওসি রওশন কবির উপস্থিত ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন