আন্দোলনকারী কয়েক শ্রমিক জানান, তাঁদের বেতনের অর্ধেক ঈদ বোনাস দেওয়া হয়। লাবণী খাতুন নামের এক নারী বলেন, কারখানার শ্রমিকদের এক মাসের বেতন আরেক মাসে দেওয়া হয়। ২৭ এপ্রিল তাঁরা মার্চ মাসের বেতন পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার তাঁদের বোনাস দেওয়ার কথা ছিল। ওই দিন বিকেলে জানানো হয়, বোনাস হবে শুক্রবার। কিন্তু শুক্রবার সকালে এসে শ্রমিকেরা শোনেন, টাকা নেই, বোনাস দেওয়া হবে শনিবার। এরপরই শ্রমিকেরা কাজ বন্ধ রেখে বিক্ষোভ শুরু করেন। দুপুরে আবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে লাবণী জানান, তাঁদের বোনাস দেওয়া হচ্ছে। বোনাস হাতে নিয়ে তাঁরা কাজে যোগ দেবেন।

কোম্পানির কার্যনির্বাহী (প্রশাসন) মো. নুরুজ্জামান বলেন, টাকা না থাকার কারণে বোনাস দিতে বিলম্ব হচ্ছিল। শ্রমিকেরা বিক্ষোভ শুরু করলে বিষয়টি ঢাকায় প্রধান কার্যালয়ে জানানো হয়। তারপর ঢাকা থেকে টাকা পাঠানো হলে বোনাস দেওয়া হয়েছে।

গত বছরের ঈদুল ফিতরের সময়ও এ কোম্পানির শ্রমিকেরা বোনাস না পেয়ে বিক্ষোভ ও ভাঙচুর করেন। তারপরও ঈদের আগে তাঁরা বোনাস পাননি। বোনাস দেওয়া হয়েছিল ঈদের পর। তবে ঈদুল আজহায় তাঁরা বোনাস পেয়েছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন