default-image

কক্সবাজারের টেকনাফে হ্নীলার লেদা এলাকায় বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে ইয়াবার চালান ফেলে পালিয়েছেন এক পাচারকারী। পরে ঘটনাস্থল লবণের মাঠ থেকে পলিথিনের ব্যাগভর্তি ৩০ হাজার ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা।

আজ বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের লেদার ছুরিরখাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। টেকনাফ-২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান প্রথম আলোকে এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

ফয়সল হাসান বলেন, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান বাংলাদেশে পাচার করা হবে, এমন তথ্য পায় বিজিবি। সেই সূত্র ধরে হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা সীমান্ত ফাঁড়ির একটি বিশেষ দল ওই এলাকায় অবস্থান নেয়। পরে একজন ব্যক্তিকে লবণের মাঠ দিয়ে রোহিঙ্গা শরণার্থীশিবিরের দিকে যেতে দেখে চ্যালেঞ্জ করা হয়। ওই ব্যক্তি বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে বিজিবি সদস্যদের লক্ষ্য করে কয়েকটি গুলি চালায়। নিজেদের আত্মরক্ষার্থে বিজিবি পাল্টা গুলি চালালে পাচারকারী হাতে থাকা পলিথিনের ব্যাগ ফেলে পার্শ্ববর্তী রোহিঙ্গা শরণার্থীশিবিরে দিকে পালিয়ে যান। পরে লবণ মাঠে এলাকায় তল্লাশি করে পলিথিনের ব্যাগভর্তি ৩০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।

বিজিবি কর্মকর্তা বলেন, উদ্ধার করা ইয়াবাগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। পরে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধিদের সামনে ধ্বংস করা হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0