default-image

ঝালকাঠিতে এক ব্যক্তি বিদেশ পাঠানোর কথা বলে ১৬ জনের কাছ থেকে ৫২ লাখ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ সোমবার দুপুরে ঝালকাঠি প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার বাসিন্দা নূর মোহাম্মদ মানিক। এ সময় প্রতারণার শিকার চাটখিলের ১৬ জন বাসিন্দা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

লিখিত বক্তব্যে মানিক অভিযোগ করে বলেন, ঝালকাঠি সদর উপজেলার হিমানন্দকাঠি গ্রামের জামাল মোল্লা ঢাকার গুলশানের জে এস ইলেকট্রিক অ্যান্ড ইলেকট্রনিকসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। তিনি নেপালে শ্রমিক পাঠানোর কথা বলে গত বছর বিভিন্ন সময় চাটখিল উপজেলার ১৬ জনের কাছ থেকে ৫২ লাখ ৫০ হাজার টাকা নেন। কিছুদিনের মধ্যেই বিদেশে পাঠানো হবে জানিয়ে তিনি ১৬ জনের কাছ থেকে পাসপোর্টও নেন। কিন্তু দীর্ঘদিনেও তিনি তাঁদের নেপাল পাঠাতে পারেননি।

লিখিত বক্তব্যে মানিক আরও অভিযোগ করেন, নেপালে না পাঠাতে পারার কারণে চলতি বছরের মার্চ মাসের মধ্যে টাকা ও পাসপোর্ট ফেরত দেওয়ার কথা বলে স্ট্যাম্পে অঙ্গীকার করেন জামাল মোল্লা। মার্চ মাসের পরে তিনি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে পালিয়ে যান। তাঁরা জামালের মুঠোফোনে ফোন করলে তিনি তাঁদের টাকা ফেরত দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দেন। টাকার জন্য ঝালকাঠি এলে তাঁদের মেরে ফেলা হবে বলেও হুমকি দেন জামাল।

নেপালে পাঠানোর কথা বলে ৫২ লাখ ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগের বিষয়ে জানতে সোমবার জামাল মোল্লার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ধরেননি।

মন্তব্য পড়ুন 0