হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আজ বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে আগুনের সূত্রপাত। খবর পেয়ে ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তবে ততক্ষণে হাসপাতালের বিদ্যুৎ–সংযোগের সিডিডিপি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়।

হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীর স্বজন সালেহা বেগম বলেন, ‘বিদ্যুৎ না থাকায় প্রচণ্ড গরমে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। হাতপাখা দিয়ে বাতাস করতে হচ্ছে। এতে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।’

ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম জানান, সদর হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে দুটি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের মাধ্যমে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের প্রধান সহকারী মতিউর রহমান জানান, হাসপাতালে বিকল্পভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ লাগানোর চেষ্টা চলছে। পুড়ে যাওয়া বিদ্যুতের সিডিডিপির দাম নিরূপণের জন্য গণপূর্ত বিভাগকে খবর দেওয়া হয়েছে।

ঝালকাঠি গণপূর্ত বিভাগের উপসহকারী প্রকৌশলী শাহাবুদ্দিন হাওলাদার বলেন, বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করার জন্য তাঁদের একটি দল কাজ করছে। রাতের মধ্যেই বিদ্যুৎ–সংযোগ দেওয়ার চেষ্টা করা হবে বলে তিনি জানান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন