default-image

শেরপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ঝলসানো এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ রোববার সকালে শেরপুর শহরের ঢাকলহাটী এলাকার একটি চালকলের টিনের চালের ওপর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

লাশ উদ্ধার হওয়া ওই কিশোরের নাম মো. মারুফ (১৬)। সে শেরপুর পৌর শহরের ঢাকলহাটীর মৃত ইমান আলীর ছেলে। নিহত কিশোরের পরিবারের অভিযোগ, মারুফকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মারুফ শনিবার রাত আটটার দিকে শহরের ঢাকলহাটী এলাকার বাসা থেকে বের হয়ে যায়। এরপর সে আর বাসায় ফিরে আসেনি। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও পরিবারের লোকজন তার সন্ধান পাননি। আজ সকাল সাড়ে আটটার দিকে ঢাকলহাটী এলাকার আর বি অটোরাইস মিলের চালের ওপর দিয়ে যাওয়া ১১ কেভি বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের নিচে কিশোরের ঝলসানো লাশ পড়ে থাকতে দেখেন সংস্কারকাজের মিস্ত্রি ও শ্রমিকেরা। খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। পরে মোর্শেদা বেগম লাশটি তাঁর ছেলে মারুফের বলে শনাক্ত করেন।

সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, নিহত কিশোরের বাঁ চোয়ালসহ গলার নিচের অংশ ও বাঁ পা পুড়ে গেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহত মারুফের মা মোর্শেদা বেগম অভিযোগ করেন, তাঁর ছেলেকে কেউ পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। এ ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিচার দাবি করেন তিনি।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, মৃত্যুর প্রকৃত কারণ নির্ণয়ে মারুফের লাশ ময়নাতদন্তের জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পুলিশ ঘটনাটি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন