বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত হেলাল মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, তিনি নির্মাণাধীন ওই ভবনের ছাদে বসে কাজ করছিলেন। এ সময় তিনি উঠে দাঁড়ালে অসাবধানতাবশত একটি বৈদ্যুতিক তারের সঙ্গে জড়িয়ে যান। এতে তিনি মেঝেতে লুটিয়ে পড়েন। এ সময় সেখানে আকরাম নামের এক শ্রমিক ঘটনাটি দেখে চিৎকার শুরু করেন। পরে পাশের ভবনের লোকজন দৌড়ে আসেন বলে তিনি শুনেছেন। এরপর তিনি জ্ঞান হারানোয় আর কিছু বলতে পারেননি। পরে জ্ঞান ফিরে দেখেন, মামুনের মুখ থেকে ফেনা বের হচ্ছে।

পরে ওই ভবনের শ্রমিকেরা ওই দুজনকে উদ্ধার করে দ্রুত সন্দ্বীপ মেডিকেল সেন্টারে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসক মামুনকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানতে চাইলে সন্দ্বীপ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বশির আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এ ঘটনায় অপমৃত্যুর মামলা হবে বলে জানান তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন