বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পূর্বসিদ্ধান্ত অনুযায়ী আজ ক্লাস করতে ক্যাম্পাসে উপস্থিত হন শিক্ষার্থীরা। ছায়াঘেরা সবুজ চত্বরে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে যেন নতুন করে প্রাণ ফিরে পায় ক্যাম্পাস। শিক্ষার্থীদের অনেকে দল বেঁধে হাঁটছেন। অনেকেই মুঠোফোনে ছবি তুলছেন।

লোকপ্রশাসন বিভাগে গিয়ে দেখা যায়, উৎসবমুখর পরিবেশে শিক্ষার্থীদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন বিভাগের শিক্ষকেরা। বিভাগীয় প্রধান আসাদুজ্জামান মণ্ডল প্রথম আলোকে বললেন, ‘আজকের এই দিনটি সত্যি সত্যিই মনে রাখার মতো। শিক্ষার্থীরা পুরোনো হলেও তাদের যেন নতুন নতুন লাগছে। প্রত্যেক শিক্ষার্থীকেই ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।’

default-image

ক্যাফেটেরিয়ার সামনে কথা হয় কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে। বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী সুমি আক্তার জানান, ‘এত দিনে ক্যাম্পাসের গাছগুলোও অনেক বড় হয়েছে। বন্ধুরাও অনেকটা বদলে গেছে এই দীর্ঘ দেড় বছরের অধিক সময়ে। বন্ধুদের দেখা হলো। কী যে আনন্দ লাগল।’

জনসংযোগ দপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আলী বলেন, পূর্বসিদ্ধান্ত অনুযায়ী সশরীর ক্লাস চালু হওয়ার কথা আজ থেকে। ক্লাসও শুরু হয়েছে। এ জন্য দুই সপ্তাহ আগে থেকে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

উপাচার্য হাসিবুর রশীদ সাংবাদিকদের বলেন, প্রতিটি ভবন, ক্লাসরুম, ওয়াশরুম, ক্যাম্পাসের চারপাশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ইতিমধ্যে আবাসিক হলেও উঠেছে। ক্লাস শুরুর আগে প্রতিটি বিভাগে শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।

উপাচার্য আরও বলেন, সেশনজট দূরীকরণে এরই মধ্যে অনেক কাজ করা হয়েছে। অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। অফলাইনেও সব পরীক্ষা যত দ্রুত সময়ে নেওয়া সম্ভব এর বাস্তবায়ন করা। তাহলে সেশনজট থাকবে না।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন