বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও নিহত দম্পতির পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, এক বছর আগে গাজীপুর জেলার টঙ্গী এলাকার তপন ঘোষের মেয়ে তমার সঙ্গে গৌরাঙ্গের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাঁদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে গৌরাঙ্গ দোকান থেকে বাড়িতে এলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। পরে তাঁরা ঘরের দরজা আটকে শুয়ে পড়েন।

আজ সকালে অনেক বেলা হয়ে গেলেও ঘরের দরজা বন্ধ থাকায় গৌরাঙ্গের মা বাইরে থেকে তাঁদের ডাকেন। অনেকক্ষণ ডাকার পরও ভেতর থেকে কোনো সাড়া না পেয়ে পরিবারের অন্য সদস্যরা ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দেখেন গৌরাঙ্গের লাশ মেঝেতে আর তমার লাশ বিছানায় পড়ে আছে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ দুটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তাফা প্রথম আলোকে বলেন, তাঁদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। গৌরাঙ্গ ঘোষের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তবে তমা ঘোষের শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। বিষয়টির তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন