বেড়াতে গিয়ে পানিতে ডুবে বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষার্থীর মৃত্যু

পানিতে ডুবে মৃত্যু
প্রতীকী ছবি

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে বেড়াতে গিয়ে পা‌নিতে ডুবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। আজ বৃহস্প‌তিবার বেলা তিনটার দিকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ভোলাগঞ্জ সাদা পাথর পর্যটন স্পটে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত জুনায়েদ আহমদ (২৪) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যায়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের স্নাতকোত্তর শেষ বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তিনি নেত্রকোনা জেলার সদর উপজেলার বড়ুনা গ্রামের বা‌সিন্দা নিয়ামুল ক‌বিরের ছেলে।

বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ঘটনাস্থলের প্রায় দেড় শ গজ দূরে ভাসমান অবস্থায় জুনায়েদকে উদ্ধার করেন সহপাঠী ও স্থানীয় লোকজন। পরে তাঁরা কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চি‌কিৎসক জুনায়েদকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ দুপুরে জুনায়েদসহ পাঁচ বন্ধু কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জে বেড়াতে যান। বেলা তিনটার দিকে সাদা পাথরের পা‌নিতে টিউব নিয়ে নামেন। একপর্যায়ে টিউব উল্টে পা‌নিতে নিখোঁজ হন জুনায়েদ। এ সময় তাঁর সঙ্গে থাকা চার বন্ধু মিলে খোঁজাখু‌জি শুরু করেন। পরে স্থানীয় লোকজনকে বিষয়‌টি জানানো হলে তাঁরাও খুঁজতে থাকেন। একপর্যায়ে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ঘটনাস্থল থেকে প্রায় দেড় শ গজ দূরে ভাসমান অবস্থায় জুনায়েদকে উদ্ধার করা হয়।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকান্ত চক্রবর্তী বলেন, নিহত শিক্ষার্থীর প‌রিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। তারা সিলেটে আসার পর আইন অনুযায়ী মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।