বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকেরা জানান, গতকাল রাত সাড়ে নয়টায় নেতা-কর্মীরা গণসংযোগের জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল বাতেনের ৮ থেকে ১০ জন সমর্থক দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাঁদের ওপর হামলা চালান। এ সময় তিনটি ককটেল নিক্ষেপ করা হয়। একটি অবিস্ফোরিত থাকে। খবর পেয়ে এলাকাবাসী এগিয়ে গেলে হামলাকারীরা পালিয়ে যান। আহত পাঁচজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

বেড়া স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ফাতেমাতুজ জান্নাত জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে হামলার ঘটনায় আহত দুজন চিকিৎসা নিয়েছেন। তারা হলেন আরিফ ও শাহিন।

নৌকার প্রার্থী আসিফ শামস অভিযোগ করেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী (নারকেলগাছ) আবদুল বাতেনের নির্দেশে হামলা চালানো হয়েছে।

২৮ নভেম্বর বেড়া পৌরসভা নির্বাচন। নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচজন প্রার্থী অংশ নিচ্ছেন। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, প্রচারণা শুরু হওয়ার পর আসিফ শামস (নৌকা) ও আবদুল বাতেনের সমর্থকদের মধ্যে প্রচার কার্যালয় ভাঙচুর, হাতাহাতি ও পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

বেড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার বলেন, গতকাল রাতের ঘটনায় আজ বুধবার দুপুর পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে সে ব্যাপারে পুলিশ তৎপর আছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন