default-image

আজ রোববার বিকেল পাঁচটার দিকে জুতা ব্যবসায়ী হাসান আলীর (৪৫) স্ত্রী বিথী বেগমের দেওয়া মামলা গ্রহণ করেছে গাইবান্ধা সদর থানা–পুলিশ। ৩০২/৩৪ ধারায় হত্যা মামলা হিসেবে এই মামলা নথিভুক্ত করা হয়। এ ছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জেলা আওয়ামী লীগের উপদপ্তর সম্পাদক দাদন ব্যবসায়ী মাসুদ রানার বিরুদ্ধে চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন গাইবান্ধার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. নজরুল ইসলাম।

মাসুদ রানার বিরুদ্ধে সাত দিনের রিমান্ড চেয়েছিল পুলিশ। পরে আদালত চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজার রহমান মামলা গ্রহণ ও মাসুদের বিরুদ্ধে রিমান্ড মঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

এদিকে খুন হওয়ার মাসখানেক আগে পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ী হাসান আলীকে আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদ রানার হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগে ওঠে। এ ঘটনায় তিন সদস্যের কমিটি গঠন করে পুলিশ। পরে সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে রোববার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন গাইবান্ধার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম। এ ছাড়া ব্যবসায়ী হাসান আলী হত্যার বিচারের দাবিতে রোববার দুপুরে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেন তাঁর পরিবারের লোকজন ও স্থানীয় বাসিন্দারা।

এর আগে শনিবার দুপুরে শহরের খানকা শরিফসংলগ্ন নারায়ণপুর এলাকায় মাসুদের বাসা থেকে হাসানের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন