বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গতকাল বেলা সোয়া তিনটার দিকে কাজলশার ইউনিয়নের মরিচা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের সামনে থেকে রির্টানিং কর্মকর্তা সালমান সাকিব এবং আরিফুল হককে সিল মারা, সিলবিহীন ব্যালটসহ আটক করা হয়। এ সময় সিলেটের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার উপস্থিত ছিলেন। পরে কাজলশার ইউপিতে ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়। সালমান সাকিব উপজেলার জকিগঞ্জ সদর, সুলতানপুর ও বারঠাকুরি ইউনিয়ন এবং উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আরিফুল হক কাজলশার ও বারহাল ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন।

এদিকে পুলিশের একটি সূত্র জানায়, ওই দুজনের কাছ থেকে ফেনসিডিলের বোতল এবং ১ লাখ ২১ হাজার ৫০০ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁদের কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া ব্যালটগুলো নৌকা প্রতীকসহ, ইউপি সদস্য এবং ইউপি সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থীর পক্ষে সিল মারা ছিল।

এ বিষয়ে জানতে কাজলশার ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান জুলকার নাইনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাঁর মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

ওসি আবুল কাশেম বলেন, উদ্ধার হওয়া ফেনসিডিলের বোতল খালি ছিল। এ জন্য মামলায় উল্লেখ করা হয়নি। অন্যদিকে টাকা উদ্ধারের ঘটনা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ওসি বলেন, ‘বিষয়টি মামলায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে কি না, বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছি? এ ছাড়া দুজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন