default-image

ব্রাজিলের সাও পাওলো শহরে দুর্বৃত্তের গুলিতে মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার এক তরুণ নিহত হয়েছেন। ব্রাজিলের সময় শুক্রবার রাত সাড়ে আটটার দিকে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। বাংলাদেশের সময় শনিবার রাত ১০টার দিকে ওই তরুণের পরিবার বিষয়টি জানতে পারে।

নিহত তরুণ হলেন রায়হান আহমদ মুত্তাকিন (২২)। তিনি বড়লেখার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের চর গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে।

প্রবাসীদের একটি সূত্র জানিয়েছে, টাকা ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে দুর্বৃত্তরা রায়হানকে হত্যা করে থাকতে পারে।

বিজ্ঞাপন
ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ১ মিনিট ৪৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, রায়হান সাদা রঙের ট্যাক্সি রাস্তার পাশে দাঁড় করিয়েছেন। হঠাৎ তিন ব্যক্তি গাড়িটির কাছে যান। কিছুক্ষণ পর গাড়িতে থাকা রায়হানকে গুলি করে দৌড়ে পালান তাঁরা।

পরিবারের সদস্য ও প্রবাসীদের সূত্রে জানা যায়, রায়হান ২০১৪ সালে জীবিকার সন্ধানে ব্রাজিলে যান। সেখানে তিনি ট্যাক্সি চালাতেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি ট্যাক্সি নিয়ে বের হন। রাত সাড়ে আটটার দিকে সাও পাওলো শহরে দুর্বৃত্তরা হঠাৎ তাঁর গাড়ির কাছে গিয়ে গুলি করে। এর ভিডিও চিত্র সেখানকার ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায় ধরা পড়ে।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ১ মিনিট ৪৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, রায়হান সাদা রঙের ট্যাক্সি রাস্তার পাশে দাঁড় করিয়েছেন। গাড়ি থেকে এক তরুণী বেরিয়ে আসেন। হঠাৎ তিন ব্যক্তি গাড়িটির কাছে যান। কিছুক্ষণ পর গাড়িতে থাকা রায়হানকে গুলি করে দৌড়ে পালান তাঁরা।

বিজ্ঞাপন

বড়লেখার বাসিন্দা ব্রাজিলপ্রবাসী কামরুল ইসলাম বলেন, রায়হানের সঙ্গে তাঁর মাঝেমধ্যে দেখা হতো। কী কারণে তাঁকে হত্যা করা হলো, বুঝতে পারছেন না।

বাড়িতে থাকা রায়হানের বড় ভাই রাসেল আহমদ আজ রোববার বলেন, ক্লাস টেনে থাকতে রায়হান ব্রাজিল চলে গিয়েছিল। আত্মীয়স্বজন ও এলাকার পরিচিতজনদের মাধ্যমে শনিবার রাত ১০টার দিকে তাঁরা মৃত্যুর খবর জানতে পারেন। তাঁর ব্রাজিলপ্রবাসী ফুফাতো ভাই তাজুল আহমদ ঘটনাস্থলে গেছেন।

মন্তব্য পড়ুন 0