বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রেলওয়ে পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রাতে রক্তাক্ত অবস্থায় রেলস্টেশনে পড়ে ছিলেন রুবেল। এই দৃশ্য দেখে রেলওয়ে ফাঁড়ির দুই পুলিশ সদস্য রুবেলকে হাসপাতালে নিয়ে যান। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রুবেলকে হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তির নির্দেশ দেন।

এরপর রাত সাড়ে নয়টার দিকে ভর্তির কাগজ সার্জারি ওয়ার্ডে জমা দেওয়ার সময় ওই তরুণ ছুরি নিয়ে পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলার চেষ্টা করেন। এ সময় এক পুলিশ সদস্য দৌড়ে ওয়ার্ড থেকে বেরিয়ে ফটকের কলাপসিবল গেট লাগিয়ে দেন।

পরে ওই তরুণ ওয়ার্ডের ভেতরে থাকা অপর পুলিশ সদস্যকে ছুরি ধরে মারধর করার চেষ্টা করেন। খবর পেয়ে হাসপাতালে দায়িত্বরত আরেক পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই গেট খুলে দেন। এ সুযোগে ওই তরুণ দৌড়ে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সালাউদ্দিন খান জানান, স্টেশন এলাকায় আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে ওই তরুণকে পুলিশ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু সেখান থেকে কৌশলে ওই তরুণ পালিয়ে গেছেন। ওই তরুণ মাদকাসক্ত ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন