default-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চলতি জুন মাসে সংক্রমণ আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। এ সময় সংক্রমণের হার ৮৬ দশমিক ৪৬ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৮১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাঁদের নমুনা প্রতিবেদন সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পৌঁছায়। এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে সংক্রমণের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৬৮। মোট মৃত্যুর ১১ জনের মধ্যে জুন মাসেই মারা গেছেন ৯ জন।

জেলায় কোভিড-১৯ রোগীদের প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, মোট সংক্রমণের ৮৬ দশমিক ৪৬ শতাংশ হয়েছে চলতি জুন মাসে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয় গত ১১ এপ্রিল। ওই সময় থেকে ৩১ মে পর্যন্ত কোভিড–১৯ আক্রান্ত হন ১৩১ জন। আর ১ থেকে আজ ৩০ জুন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩৭ জন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ বলেন, ঢাকার সরকারি ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টারের পিসিআর ল্যাব থেকে ২৮৫টি নমুনার ফলাফল এসেছে। এর মধ্যে ৩৭ জনের ফলাফল পজিটিভ এসেছে। আর জেলার বেসরকারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব থেকে পাওয়া ১০৮টি নমুনার মধ্যে ৪৪ জনের ফলাফল পজিটিভ এসেছে।
জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, আজ জেলায় করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) শনাক্ত হওয়া রোগীদের মধ্যে সদর উপজেলায় ২৭ জন, আখাউড়ায় ৩ জন, নবীনগরে ১৭ জন, বিজয়নগরে ২ জন, সরাইলে ৬ জন, নাসিরনগরে ২ জন, কসবায় ১৯ জন ও আশুগঞ্জে ৫ জন রয়েছেন। জেলায় এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২২৪ জন। মারা গেছেন ১১ জন। এর মধ্যে চলতি জুন মাসেই মারা গেছেন ৯ জন। এ পর্যন্ত জেলায় ৯ হাজার ৩৭০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। যার মধ্যে ৮ হাজার ৬০৩ জনের ফলাফল পাওয়া গেছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন