default-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে গত ২৮ মার্চ হেফাজতে ইসলামের হরতালের সময় বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ভাঙচুরের ঘটনায় আরমান আলিফ (২২) নামের এক তরুণকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। আজ সোমবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেনে র‌্যাব-১৪-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আবু নাইম মো. তালাত।

আরমান নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড়া ইউনিয়নের ফুলকাকান্দি গ্রামের বাসিন্দা। আরমান জেলা শহরের কাজীপাড়া এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, হরতালের দিন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনার পর থেকে ভিডিও ফুটেজ ও স্থিরচিত্র সংগ্রহ করে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি ভাঙচুরের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের আটকের চেষ্টা শুরু হয়।

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১৪-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আবু নাইম মো. তালাত বলেন, গতকাল রোববার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের বিশ্বরোড থেকে আরমানকে আটক করেন র‌্যাব সদস্যরা। বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ভাঙচুরের সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয়টি র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেন আরমান। পরে তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল রাত সাড়ে চারটার দিকে জেলা শহরের কাজীপাড়ায় তাঁর ভাড়া বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় তাঁর কক্ষ থেকে ম্যুরাল ভাঙার কাজে ব্যবহৃত একটি শাবল, একটি অবৈধ পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন ও চারটি গুলি উদ্ধার করা হয়। তিনি আরও বলেন, ম্যুরাল ভাঙার ফুটেজে আরমানের মাথায় চুল ও দাড়ি দেখা গেছে। কিন্তু পরিচয় গোপন করতে তিনি দাড়ি ও চুল কেটে ফেলেন। এ ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানায় মামলা হবে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন