বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বেলা দেড়টার দিকে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক দিয়ে উজ্জ্বল তাঁর ব্যাটারিচালিত রিকশা নিয়ে ঘাটুরা থেকে পীরবাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। পীরবাড়ির কাছে আসতেই সিলেট থেকে ছেড়ে আসা কুমিল্লাগামী ‘কুমিল্লা ট্রান্সপোর্ট’-এর একটি বাস পেছন থেকে উজ্জ্বলের রিকশাটিকে ধাক্কা দেয়। এতে রিকশা থেকে ছিটকে উজ্জ্বল রাস্তায় পড়ে যান এবং রিকশাটি মহাসড়কের পাশের গিয়ে ছিটকে পড়ে। এ সময় যাত্রীবাহী বাসটি উজ্জ্বলের ওপর দিয়ে চলে যায়। বাসের চাপায় ঘটনাস্থলেই উজ্জ্বল মারা যান।

বাসের ধাক্কায় রিকশা থেকে ছিটকে উজ্জ্বল রাস্তায় পড়ে যান এবং রিকশাটি মহাসড়কের পাশের গিয়ে ছিটকে পড়ে। এ সময় যাত্রীবাহী বাসটি উজ্জ্বলের ওপর দিয়ে চলে যায়।

স্থানীয় লোকজন এগিয়ে গিয়ে ওই বাস ও বাসের চালককে আটক করে পুলিশে খবর দেন। উজ্জ্বলের লাশ সড়কের ওপরে পড়ে থাকায় সড়কের দুই পাশে প্রায় চার কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজট সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানা ও জেলা ট্রাফিক পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। এ সময় বাসের চালককে আটক করে পুলিশ। জেলা ট্রাফিক পুলিশ ও সদর থানার পুলিশ রাস্তার যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টায় নামে।

গ্যারেজের মালিক মাহবুবুর রহমান বলেন, সকালে উজ্জ্বল গ্যারেজ থেকে রিকশা নিয়ে বের হন। পরে দুর্ঘটনার খবর শুনে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁর লাশ শনাক্ত করেন এবং তাঁর পরিবারকে খবর দেন।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় বাস ও বাসের চালককে আটক করে থানায় নেওয়া হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন