default-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) শনাক্ত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাঁদের নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন সিভিল সার্জন কার্যালয়ে এসে পৌঁছায়। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৯৩।

জেলায় কোভিড-১৯ রোগীদের প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, মোট সংক্রমিতদের ৮৬ দশমিক ৪৬ শতাংশই হয়েছে গেল জুন মাসে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রথম করোনা ‘পজিটিভ’ রোগী শনাক্ত হয় গত ১১ এপ্রিল। ওই সময় থেকে ৩১ মে পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হন ১৩১ জন। আর ১ জুন থেকে আজ ২ জুলাই পর্যন্ত জেলায় আরও ৯৬২ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন। অর্থাৎ জেলার ৮৮ শতাংশ করোনা রোগীই শনাক্ত হন শেষ ৩২ দিনে (১ জুন-২ জুলাই)।

আজ সন্ধ্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ জানান, জেলার বেসরকারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব থেকে আজ পাওয়া ৫৮টি নমুনার রিপোর্টে ২১ জনের ফলাফল ‘পজিটিভ’ এসেছে। নতুন শনাক্ত হওয়া এই রোগীদের মধ্যে সদর উপজেলায় রয়েছেন ১৯ জন, আখাউড়ায় ১ জন ও নাসিরনগর উপজেলায় ১ জন রয়েছেন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, জেলায় করোনা থেকে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৩৮ জন। আর মারা গেছেন ১৭ জন। এর মধ্যে জুন মাসেই মারা গেছেন ১৫ জন। এ পর্যন্ত জেলায় ১০ হাজার ২২০ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। যার মধ্যে এখন পর্যন্ত ৯ হাজার ৪৩৯ জনের প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। আরও ৭৮১ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট অপেক্ষাধীন রয়েছে।

জেলায় করোনা রোগীদের তথ্য ঘেঁটে জানা গেছে, গত ১০ থেকে ১২ জুন তিন দিনে ১০১ জন আক্রান্ত হয়েছে। আর গত ১৮ জুন রাতে আসা ৪৭৮ নমুনার ফলের মধ্যে সর্বোচ্চ ১০৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এরপর ২২ থেকে ২৪ জুন সন্ধ্যা পর্যন্ত ৫১ ঘণ্টায় ১১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। ২৬ থেকে ২৮ জুন জেলায় ২১৪ জনের, ৩০ জুন মঙ্গলবার ৮১ জনের ও ১ জুলাই ১০৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন