default-image

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় লকডাউনের সময় স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা অমান্য করার অপরাধে ৩০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। আজ বুধবার বেলা ১১টা থেকে ২টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের এক অভিযানে এই জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. শামীম আল ইমরান এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূসরাত লায়লা নীরা। উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ যৌথভাবে এ অভিযান পরিচালনা করে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকারঘোষিত লকডাউন চলছে। অনেকেই লকডাউন মানছেন না। স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা অমান্য করছেন। লকডাউন কার্যকর করতে বড়লেখা শহরের থানা এলাকায়, হাজীগঞ্জ বাজার, চৌমুহনী, দাসেরবাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি নির্দেশনা অমান্য করায় ৩০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৭ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

অভিযানে অংশ নেন বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রতন দেবনাথ, উপপরিদর্শক (এসআই) প্রভাকর রায় প্রমুখ।

ইউএনও মো. শামীম আল ইমরান বলেন, ‘করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে বিধিনিষেধ কার্যকর করতে উপজেলার বিভিন্ন বাজারে অভিযান চালানো হয়। উপজেলার দুই প্রান্তে পুলিশের দুটি চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়। বিধিনিষেধ মানতে মানুষকে আমরা উদ্বুদ্ধ করেছি। যাঁরা বিধিনিষেধ মানেনি, তাঁদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের আওতায় এনেছি। এ সময় জনসাধারণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ করেছি।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন