বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সিংড়া থানার পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রাতে কলম ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মইনুল হক জগতপুর মোড়ে নিজ নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে পথসভায় বক্তব্য দিচ্ছিলেন। এ সময় দুর্বৃত্তরা চেয়ারম্যানকে গুলি করার চেষ্টা করলে উপস্থিত জনতা দুজনকে হাতেনাতে আটক করেন। বাকিরা পালিয়ে যান। খবর পেয়ে সিংড়া থানা থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে একটি রিভলবারসহ আটক দুই দুর্বৃত্তকে তাদের হেফাজতে নেয়। পরে তাঁদের সিংড়া থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

আটক শামসুল ইসলাম কলমের কালিনগর গ্রামের মৃত খান মোহাম্মদের ছেলে এবং একই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ফজলার রহমান হত্যার যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি। অপরজন জাহিদুর রহমান ওরফে বাবলু পাশের গুরুদাসপুর উপজেলার খামার নাসকৈড় গ্রামের লুৎফর রহমান ছেলে এবং ফজলার রহমান হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি ছিলেন।

সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুর-এ-আলম সিদ্দিকী প্রথম আলোকে বলেন, আটক দুজনের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টা ও অস্ত্র আইনে পৃথক মামলা হয়েছে। আজ দুপুরে তাঁদের আদালতে হাজির করা হবে। ২৬ ডিসেম্বর কলম ইউপির নির্বাচন। নির্বাচনী বিরোধ থেকে হত্যাচেষ্টার এই ঘটনা ঘটতে পারে।

বর্তমান চেয়ারম্যান মইনুল হকের বড় ভাই আওয়ামী লীগ দলীয় সাবেক চেয়ারম্যান ফজলার রহমানকে ২০১৪ সালের ১৮ জানুয়ারি গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন