default-image

ভোট দিতে বাধা, পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে ঢুকতে না দেওয়ার অভিযোগে রাজশাহীর বাগমারার ভবানীগঞ্জ পৌরসভায় বিএনপির দলীয় প্রার্থী আবদুর রাজ্জাক ভোট বর্জন করেছেন। আজ বেলা সোয়া ১১টার দিকে তিনি গণমাধ্যমকে এ কথা জানান।

আবদুর রাজ্জাক এই নির্বাচনকে তামাশার নির্বাচন বলেও মন্তব্য করেন।

মুঠোফোনে আবদুর রাজ্জাক বলেন, আজ সকালে তিনি তাঁর ছেলে ও ভাতিজাকে নিয়ে চানপাড়া শহীদ সেকেন্দার মেমোরিয়াল আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিতে যান। এ সময় আওয়ামী লীগের লোকজন তাঁকে কেন্দ্র থেকে চলে যেতে বলেন। তিনি নিজের ভোটটি দেওয়ার সুযোগ দিতে বলেন। কিন্তু তাঁকে কেন্দ্রেই যেতে দেওয়া হয়নি। এ সময় তাঁর সমর্থকদের লাঞ্ছিত করা হয়। পরে তিনি চলে আসেন।

বিজ্ঞাপন

রাজ্জাক গণমাধ্যমকে বলেন, এভাবে নির্বাচন হতে পারে না। নিজের ভোটটিও দিতে পারেননি তিনি। তা ছাড়া তাঁর পোলিং এজেন্টদের কেন্দ্রে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। বিভিন্ন স্থানে মারপিট করে কেন্দ্রে যেতে বাধা দেওয়া হচ্ছে। সুষ্ঠু ভোট হওয়ার কোনো পরিবেশ না থাকায় তিনি ভোট বর্জন করেছেন।

এদিকে চানপাড়া শহীদ সেকেন্দার মেমোরিয়াল আদর্শ উচ্চবিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে সরেজমিনে ধানেরে শীষের কোনো এজেন্ট-সমর্থককে দেখা যায়নি। কোনো বুথে বিএনপির মেয়র প্রার্থী আবদুর রাজ্জাকের পোলিং এজেন্ট ছিল না।

ওই কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং কর্মকর্তা সাইফ আবদুল্লাহ মোস্তাকিন প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমার ক্ষমতা কেন্দ্রের গেট পর্যন্ত। কোনো পোলিং এজেন্ট আসেননি। এলে তাঁদের বুথে ঢোকানোর ব্যবস্থা করা হবে।

ওই কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কৌশিক আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, তিনিও এই ধরনের অভিযোগ মুঠোফোনে পেয়েছেন। তবে বাস্তবে এসে কাউকে পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন