default-image

ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নগরকান্দা পৌরসভার মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকারের স্ত্রী সঞ্চিতা সরকার, তাঁর ছেলে গোবিন্দ সরকারসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় মেয়র গুরুতর আহত হয়েছেন। বুধবার রাত সোয়া নয়টার দিকে ঢাকা খুলনা-মহাসড়কের ভাঙ্গা উপজেলার কালাইয়ের মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকারকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় মেয়রের প্রতিবেশী মো. কামাল হোসেন (৪০) নিহত হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নগরকান্দা পৌরসভার মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকার পরিবারের সদস্য ও স্বজনদের নিয়ে মাইক্রোবাসে ভাঙ্গা যাচ্ছিলেন। ভাঙ্গা–নগরকান্দা আঞ্চলিক সড়ক থেকে মহাসড়কে ওঠার সময় বাগেরহাট থেকে ঢাকাগামী জিএস পরিবহনের একটি বাস মাইক্রোবাসের মাঝবরাবর ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মেয়রের স্ত্রী সঞ্চিতা সরকার (৪৫) ও তাঁদের প্রতিবেশী কামাল নিহত এবং মেয়র ও তাঁর ছেলে আহত হন।

স্থানীয় লোকজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক গোবিন্দ সরকারকে (২৫) মৃত ঘোষণা করেন। পরে মেয়রকে মুমূর্ষু অবস্থায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

বিজ্ঞাপন

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি ওমর ফারুক বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মাইক্রোবাস ও বাসের সাত যাত্রীকে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। এখানে আসার পর গোবিন্দকে মৃত ঘোষণা করা হয় এবং মেয়র নিমাই চন্দ্রকে ফরিদপুরে পাঠানো হয়।

নগরকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বলেন, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনে নিমাই সরকার মেয়র নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন