বিজ্ঞাপন

কোয়ারেন্টিনের ১৪তম দিন গত মঙ্গলবার সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়। বুধবার রাতে পাওয়া ফলাফলে দেখা যায় শিশুটির শরীরে করোনাভাইরাস রয়েছে। তবে তার মা ও মামার শরীরে করোনা শনাক্ত হয়নি।

এরপর গতকাল রাতেই ওই শিশুটিকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন থেকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সঙ্গে তার মা রয়েছেন। তবে মামাকে ছাড়পত্র দেওয়ায় তিনি বাড়ি ফিরে গেছেন।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা আরিফ আহমেদ বলেন, করোনা শনাক্ত হওয়ার পর শিশুটিকে হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। তার শরীরে করোনার গুরুতর কোনো উপসর্গ নেই।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন